Breaking News

This text will scroll from right to left

বাংলাদেশ

       এসএসসি পরীক্ষার্থীকে গণধর্ষণ, আটক ১

   এফএনএস:চুয়াডাঙ্গার জীবননগর উপজেলায় প্রেমের ফাঁদে ফেলে এক এসএসসি পরীক্ষার্থীকে গণধর্ষণ করেছেন তিন যুবক। ধর্ষণের দৃশ্য ভিডিও ধারণ করা হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। পুলিশ জানায়, জীবননগর উপজেলার আলীপুর গ্রামের মৃত আবদুস সালামের ছেলে আরিফের সঙ্গে বছর খানেক আগে পাশের নতুন তেতুলিয়া গ্রামের ওই এসএসসি পরীক্ষার্থীর প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে। পরীক্ষার্থী জানায়, রোববার তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি পরীক্ষা দিয়ে বাড়ি ফেরার সময় আরিফ মোবাইলে ফোন করে দেখা করতে বলে। পরে দেখা করতে গেলে দিনভর বিভিন্ন স্থানে ঘোরাঘুরি পর তাকে উপজেলার খয়েরহুদা গ্রামের একটি ভুট্টা খেতে নিয়ে ধর্ষণ করে আরিফ। পরে আরিফের দুই বন্ধু জুয়েল ও সিরাজুল জোরপূর্বক ধর্ষণ করে তাকে। এ সময় ধর্ষণের ভিডিও ধারণ করে আরিফ। ধর্ষণের পর ওই পরীক্ষার্থী জ্ঞান হারালে তার সঙ্গে থাকা স্বর্ণালঙ্কার নিয়ে পালিয়ে যায় তারা। পরীক্ষার্থীর বাবা জানায়, ধর্ষণের দুই দিন পর মঙ্গলবার সন্ধ্যায় আরিফ স্বর্ণালঙ্কার ফেরত দেওয়ার কথা বলে আবারো আমার মেয়েকে দেখা করতে বলে। তার কথা মতো আমার মেয়ে উপজেলার ল²ীপুর গ্রামের একটি ব্রিজের কাছে অবস্থান নেয়। এ সময় আরিফ সেখানে আসলে স্থানীয় লোকজনের সহযোগিতায় তাকে আটক করা হয়। পরে গ্রামবাসী আরিফকে গণধোলাই দেয়। খবর পেয়ে জীবননগর থানা পুলিশ আরিফকে আটক করে থানায় নিয়ে যায়। এ ঘটনায় গত বুধবার রাতেই ওই এসএসসি পরীক্ষার্থী বাদী হয়ে ধর্ষক আরিফ, জুয়েল ও সিরাজুল ইসলামের নামে জীবননগর থানায় মামলা দায়ের করে। জীবননগর থানার ওসি মাহমুদুর রহমান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, এ ঘটনায় অন্য দুই ধর্ষককেও গ্রেফতারে অভিযান চালানো হচ্ছে। জীবননগর থানার ওসি (তদন্ত) আবদুল­াহ আল মামুন জানান, ইতোমধ্যে এ মামলায় ধর্ষক আরিফকে গ্রেফতার দেখানো হয়েছে। অন্য দুই ধর্ষককে গ্রেফতারে পুলিশ অভিযান শুরু করেছে।